মুজিববর্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের ঘর প্রদান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসেবার অনন্য উদাহরণ : ইন্দিরা

মুজিব বর্ষে বঙ্গবন্ধু কন্যা ভুমিহীন ও গৃহহীন মানুষের জন্য যে নয় লাখ ঘর দিচ্ছেন তা সাধারণ মানুষের উন্নয়নে ও জনসেবার অনন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে। আজ মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে ঘর হস্তান্তরের অনুষ্ঠানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এ কথা বলেন। এসময় তিনি এ উপজেলার ১৫০টি পরিবারকে মোট ৫০৮টি ঘরের কবুলিয়ত দলিল, নামজারিপত্র ও ঘর প্রদানের সনদ হস্তান্তর করেন। এই দুই শতাংশ জমির বন্দোবস্তসহ ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা ব্যায়ে নির্মিত প্রতিটি ঘরে ২ টি কক্ষ, ১ টি বারান্দা, রান্নাঘর ও ওয়াশরুম রয়েছে । ‘মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জনের পরপরই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ পুনর্গঠনের কাজ শুরু করে সবুজ বিপ্লবের ডাক দেন এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু গৃহহীন মানুষের জন্য গুচ্ছগ্রাম প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছিলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, পদ্মাসেতু, কর্ণফুলী ট্যানেল, রেকর্ড বিদ্যুৎ উৎপাদন, খাদ্য নিরাপত্তা, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও নারীর ক্ষমতায়ন সবই সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশের চিত্র। উল্লেখ্য, ‘মুজিববর্ষে বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ ঘোষণা বাস্তবায়নে দেশের সব ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর দিচ্ছে সরকার। তারই ধারাবাহিকতায় আজ সারাদেশে একযোগে ৬৬ হাজার ১৮৯ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ঘর প্রদান করা হয়। এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মনিরুজ্জামান তালুকদার, পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আমিরুল ইসলামপ্রমুখ।